1. admin@drstisimana.com : admin :
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৪৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
কালিয়াকৈরে নৌকার মাঝি হলেন রেজাউল করিম রাসেল। রাজশাহীর বাঘাতে পেয়ারার ক‍্যারেটে ১০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক দুই। ময়মনসিংহের ফুলপুরে বিএমএসএফ’র কমিটি গঠন,সভাপতি মিজান সা: সম্পাদক রায়হান। গাজীপুরে আখের বাম্পার ফলনে খুশি কৃষকরা। স্থায়ী জামিন পেলেন সাংবাদিক খায়রুল আলম রফিক। নওগাঁয় র‌্যাবের অভিযানে হেরোইন ও ফেন্সিডিলসহ ৩ জন গ্রেফতার। কালিয়াকৈরে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত। পথিকৃৎ প্রকাশনী-এর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলেন কথাসাহিত্যিক ও কবি শফিক রিয়ান। মুরগির মাংস খাওয়া কে কেন্দ্র করে ছেলের বউ এর লাঠির আঘাতে শাশুড়ি খুন। খুলনার পাইকগাছা নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ বন্ধ মেয়ের পিতার অর্থদন্ড।

বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এর বিরুদ্ধে মামলা।

সাব্বির রহমান, স্টাফ রিপোর্টার:
  • আপডেট সময়: মঙ্গলবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে:

গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়া নামের দ্বাদশ শ্রেণির এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ(মঙ্গলবার)ভোরে রাজধানীর গুলশান থানায় ‘আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া’র অভিযোগ এনে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন ভিকটিমের বড় বোন নুসরাত জাহান। পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল সোমবার রাতে ওই কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি সেই ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশের গুলশান বিভাগের ডেপুটি কমিশনার সুদীপ চক্রবর্তী বলেন, ‘মৃত কলেজ শিক্ষার্থীর বোন আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে আজ (মঙ্গলবার) ভোরে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেছেন। আমরা অভিযোগের সত্যতা পেলে আসামির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’ গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবুল হাসান এ মামলার তদন্ত করছেন।

এর আগে রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়া নামের এ কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সন্ধ্যার দিকে লাশটি উদ্ধার করে গুলশান থানা পুলিশ।

গুলশান বিভাগের উপকমিশনার(ডিসি) সুদীপ কুমার চক্রবর্তী বলেন, ‘আমরা শুনেছি মুনিরা তাঁর বোনকে ফোনে জানিয়েছিলেন যে, তিনি খুব বিপদে পড়েছেন। বড় বোন নুসরাতকে সেখানে আসতেও বলেন মোসারাত জাহান মুনিয়া। তারপর সোমবার সন্ধ্যায় গুলশান ২ নম্বরের ১২০ নম্বর সড়কের ওই ফ্ল্যাটে গিয়ে মুনিয়ার বড় বোন দরজা বন্ধ পান। অনেক ধাক্কাধাক্কি করলেও দরজা খোলা হচ্ছিল না। এর আগে থেকে মুনিয়ার ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর ফ্ল্যাট মালিকের উপস্থিতিতে মিস্ত্রি দিয়ে পুলিশ দরজা ভেঙে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেন।’

সুদীপ কুমার চক্রবর্তী বলেন, ‘এ ঘটনায় সোমবার দিবাগত রাতে মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান বাদী হয়ে ৩০৬ ধারায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে গুলশান থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর-২৭।’

ডিসি আরও বলেন, ‘মুনিয়া রাজধানীর একটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তাঁর বাড়ি কুমিল্লা। সেখানেই থাকে তাঁর পুরা পরিবার। মুনিয়ার বাবা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। আমরা ঘটনাস্থলের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ জব্দ করেছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় কেউ জড়িত কি-না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এদিকে মামলার বাদীর বরাত দিয়ে গুলশান জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার(এডিসি) নাজমুল হাসান ফিরোজ বলেন, ‘মুনিয়ার সঙ্গে একটি শিল্প গোষ্ঠীর এক কর্মকর্তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গুলশানের একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে মুনিয়া সেখানে একাই থাকতেন। মুনিরার সঙ্গে যার প্রেমের সম্পর্ক ছিল, তিনি ওই বাসায় নিয়মিত যাতায়াত করতেন।’

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মরদেহ উদ্ধারের পর গুলশান থানার পুলিশ সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। এরপর ঘটনাস্থলে যায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ক্রাইম সিন ইউনিট। পুলিশ সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ও মুনিয়ার ব্যবহৃত ডিজিটাল ডিভাইসগুলো জব্দ করেছে।

রাতে ডিএমপির এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে ব্রিফিংকালে বলেন, ‘ওই তরুণীর মরদেহ আমরা ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের (ঢামেক) মর্গে পাঠিয়েছি। তাঁর বড় বোন নুসরাত জাহান আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা করেছেন। তাঁর যে মূল অভিযোগ তা হলো—ভিকটিমের সঙ্গে একটি শিল্প গোষ্ঠীর এমডি— তাঁর দুই বছরের প্রেমের সম্পর্ক থাকা অবস্থায় এক বছর ভিকটিমকে তিনি বনানীর একটি ফ্ল্যাটে রাখেন। এরপর মনোমালিন্যের পরিপ্রেক্ষিতে ভিকটিম তাঁর বোনের কাছে ফোন করে জানান যে, যেকোনো মুহূর্তে তাঁর যেকোনো ঘটনা ঘটে যেতে পারে।’

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘তিনি (মুনিয়া) আত্মহত্যা করেছেন কি-না, বা সার্বিকভাবে কী কী পারিপার্শ্বিকতার পরিপ্রেক্ষিতে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে, সেগুলোর জন্য যে আইনগত বিষয়— এগুলো আমরা সংগ্রহ করে নিচ্ছি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
আমাদের এখান থেকে কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ এবং আমাদের এখানে প্রচারিত সংবাদ সম্পূর্ণ আমাদের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে পাওয়া। কোন প্রকার মিথ্যা নিউজ হলে তার জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না সম্পূর্ণ দায়ী থাকিবে নিউজ পেরন কারী সাংবাদিক। (মানবিক দৃষ্টি সীমানা ফাউন্ডেশন এর একটি প্রতিষ্ঠান) 
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It