1. admin@drstisimana.com : admin :
রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
কপিলমুনি প্রেসক্লাবে পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী ও প্রতিষ্ঠাতা শেখ সেফারুল ইসলামের রুহের মাগফেরাত কামনা। ঢাকা-গাজীপুর সড়ক পথে আসছে যুগান্তকারী পরিবর্তন। জনপ্রিয়তার শীর্ষে সাবেক চেয়ারম্যান, রুহুল কাদের মানিক। দলিয় পদ হারাচ্ছেন গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর। শ্রীনগর বাঘড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা। পাইকগাছার রাড়ুলী ডাকাতি মামলার আসামী পুলিশের হাতে আটক। সিরাজগঞ্জে কাজিপুরে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের স্মারকলিপি প্রদান। অভাবের সাথে যুদ্ধ করে ক্লান্ত, স্ট্যাটাস দিয়ে বিজিবি সদস্যের আত্মহত্যা। ঝিনাইদহে অস্ত্র ও ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার ০১ জন। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাখি উদ্ধার করলো শিবগঞ্জ উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই একই পুকুর থেকে ফের দুটি মর্টারশেল ও একটি রকেট লাঞ্চার উদ্ধার।

স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট সময়: শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৪৪ বার পড়া হয়েছে:

আবারো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ শামসুজ্জোহা হলের পাশে একটি পুকুর থেকে আবারোও দুটি মর্টার শেল ও একটি রকেট লঞ্চার উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জুয়েল নামে স্থানীয় এক যুবক লাকড়ি কুড়াতে এসে রকেট লঞ্চারটি দেখতে পায়। পরে পাশে নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশকে জানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আরও দুটি মর্টারশেল উদ্ধার করে। জুয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের মতিহার হলের ডাইনিংয়ের কাজ করেন।

লঞ্চার ও মর্টারশেল যে স্থান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তার পাশেই একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনীর ক্যাম্প ছিল। এগুলো যুদ্ধের সময়কার বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগে গত ২৭ এপ্রিল পার্শ্ববর্তী পুকুর থেকে একটি অবিস্ফোরিত মর্টারশেল উদ্ধার করে পুলিশ। পরের দিন সেনাবাহিনীর বোমা নিষ্ক্রিয় টিম মর্টারশেলটি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিষ্ক্রিয় করে।

মর্টারশেল ও লাঞ্চার উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে মতিহার থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ইমরান হোসাইন বলেন, উদ্ধারকৃত মর্টারশেল ও রকেট লঞ্চার বদ্ধভূমি এলাকার পুলিশ বক্সের পাশে ঘিরে রাখা হয়েছে। প্রসঙ্গত, ১৯৭১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ শামসুজ্জোহা হল ছিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর ক্যাম্প। সম্প্রতি হলের পূর্বপাশে পুকুর খননের কাজ শুরু হয়েছে। খনন করা পুকুর থেকে মর্টারশেল ও রকেট লঞ্চারটি উদ্ধার করা হয়।

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, লঞ্চার ও মর্টারশেলটি যে স্থান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তার পাশেই পাকিস্তানি বাহিনীর ক্যাম্প ছিল। এগুলো যুদ্ধের সময়কার বলে আমরা ধারণা করছি। মাটি খনন করলে আরও পাওয়া যেতে পারে বলেও জানান তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
আমাদের এখান থেকে কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ এবং আমাদের এখানে প্রচারিত সংবাদ সম্পূর্ণ আমাদের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে পাওয়া। কোন প্রকার মিথ্যা নিউজ হলে তার জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না সম্পূর্ণ দায়ী থাকিবে নিউজ পেরন কারী সাংবাদিক। (মানবিক দৃষ্টি সীমানা ফাউন্ডেশন এর একটি প্রতিষ্ঠান) 
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It