1. admin@drstisimana.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১১:১২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
কবি মোঃ রাসেল হাসান এঁর কবিতা ‘মনের ভিটা’। বিনোদপুর ইউনিয়ন বাসী নৌকার প্রার্থী হিসেবে শরীফুল মাষ্টারকে চান। উলিপুরে ক্ষতিগ্রস্থ মন্দির ও পরিবারের মাঝে চেক বিতরণ। জলঢাকায় ডাভ সেলফ এস্টিম প্রকল্পের অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত। সনাতন সম্প্রদায়ের ওপর হামলার প্রতিবাদে গাজীপুরে বিক্ষোভ। বাড়ি ঘরে অগ্নি-সংযোগ কারীদের বিরুদ্ধে গাজীপুরে মানববন্ধন। নওগাঁয় প্রার্থীদের নিয়ে নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। সবাই কে কাদিয়ে চলেগেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক । টাংগাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় চালক সহ ২০ জন আহত, নিহত ০১জন। শরণখোলায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুণ্ণ রাখতে উপজেলা প্রশাসনের র‍্যালি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত।

নওগাঁয় ক্লু-লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করলো পুলিশ।

অহিদুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট সময়: রবিবার, ৩০ মে, ২০২১
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে:

নওগাঁর রাণীনগরে একটি ক্লু-লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ, বিজ্ঞ আদালতে দুই আসামির স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান ও লাশ বহনকারী একটি পিকআপ জব্দ করেছে। রবিবার দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া। সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান-১৯ এপ্রিল রাণীনগর উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের ধনপাড়া গ্রামের একটি পুকুরে এলাকাবাসি প্লাষ্টিকের একটি ড্রামের ভিতর অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ দেখতে পায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে এবং লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে লাশ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠান।

পুলিশ সুপার আরো জানান, এ ঘটনায় গ্রাম পুলিশ আব্দুল আজিজ বাদি হয়ে রাণীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করলে সেই মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ গুরুত্বের সাথে তদন্ত শুরু করে। তদন্তের এক পর্যায়ে নিহত পরিচয় পাওয়া যায়। নিহতের নাম শহীদুল ইসলাম। সে আত্রাই উপজেলার বাউল্লা্যপাড়া গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে। পরে নিহতের পরিবারের কাছ থেকে জানা যায়, শহীদুল ১লাখ ৪০ হাজার টাকা নিয়ে ট্রাক্টর কেনার জন্য নওগাঁ শহরে যায়। কিন্তু পরবর্তীতে তার সাথে পরিবারের আর কেউ যোগাযোগ করতে পারে নাই।

তিনি আরো জানান এই ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে পুলিশ আত্রাই উপজেলার বাজেধনেশ্বর গ্রামের মমতাজ সরদারের ছেলে আলম সরদার (৩৫) ও বাউল্যাপাড়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে মামুনুর রশিদ ঋতু (২১) এবং মান্দা উপজেলার বড়পই গ্রামের ইয়াছিন দেওয়ানের ছেলে জুয়েল রানা ও বয়েন উদ্দিনের ছেলে বুলবুল হোসেন (৪৫) কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর তাদের আদালতে সোপর্দ করে ২দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের কিছু তথ্য পাওয়া যায়। সেই তথ্যর ভিত্তিতে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকায় মান্দা উপজেলার দূর্গাপুর মধ্য পাড়ার আব্দুস সামাদ ছেলে সজিব (২৩) এবং দূর্গাপুর সোনারপাড়া গ্রামের বাহার আলীর ছেলে সোয়েল রানা (২৫) কে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের জিঞ্জাসাবাদে শহীদুলকে একটি ভাড়া বাসায় হত্যা করে তার কাছে থাকা টাকা নিয়ে মান্দার সতীহাট থেকে একটি পিকআপে করে ড্রামের ভিতর ভরে লাশটি উক্ত স্থানে ফেলে রেখে চলে আসে। পরে শনিবার আসামীরা পুলিশের কাছে এবং আদালতে কাছে নিজেদের হত্যাকান্ডের জড়িত থাকার ১৬৪ ধারা স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ একেএম মামুন চিশতী ও সদর সার্কেল আবু সাঈদ, রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিন আকন্দ, নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন জুয়েলসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
আমাদের এখান থেকে কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ এবং আমাদের এখানে প্রচারিত সংবাদ সম্পূর্ণ আমাদের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে পাওয়া। কোন প্রকার মিথ্যা নিউজ হলে তার জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না সম্পূর্ণ দায়ী থাকিবে নিউজ পেরন কারী সাংবাদিক। (মানবিক দৃষ্টি সীমানা ফাউন্ডেশন এর একটি প্রতিষ্ঠান) 
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It