1. admin@drstisimana.com : admin :
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
কুমিল্লাতে কোরআন অবমাননার ঘটনায় রাণীশংকৈলে প্রতিবাদ মিছিল ও সভা অনুষ্ঠিত। রামচন্দ্রপুর মেম্বার পদপ্রার্থী জাকারিয়া খানকে সকলে চায়। আড়ানী বিট পুলিশিং এর আয়োজনে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত। রেকর্ড জয়ে বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ।। ফাইতং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার্থে বিট পুলিশ মতবিনিময় সভা। কবি মোঃ রাসেল হাসান এঁর কবিতা ‘মনের ভিটা’। বিনোদপুর ইউনিয়ন বাসী নৌকার প্রার্থী হিসেবে শরীফুল মাষ্টারকে চান। উলিপুরে ক্ষতিগ্রস্থ মন্দির ও পরিবারের মাঝে চেক বিতরণ। জলঢাকায় ডাভ সেলফ এস্টিম প্রকল্পের অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত। সনাতন সম্প্রদায়ের ওপর হামলার প্রতিবাদে গাজীপুরে বিক্ষোভ।

২৩শে জুন ৭২ বছরে পা রাখতে যাচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ।

নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময়: সোমবার, ২১ জুন, ২০২১
  • ৬০ বার পড়া হয়েছে:

আগামী ২৩জুন বাহাত্তর বছরে পা রাখছে দেশের সবচেয়ে বৃহৎ ও প্রাচীন রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ। ১৯৪৯ সালে রোজ গার্ডেনে জন্ম। রোজ গার্ডেন থেকে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ গোটাটাই বাংলাদেশের ইতিহাস। আওয়ামীলীগের শরীরে মোড়ানো আন্দোলন, সংগ্রামের ঐতিহ্য।বঙ্গবন্ধুর আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে সবচে বড় অর্জন স্বাধীনতা। আর স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ।

১৯৪৭ এ পাকিস্তান জন্মের পর পরই পাকিস্তানি শাসকদের বৈষম্যে বাঙালির স্বপ্নভঙ্গ। ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন রোজ গার্ডেনে জন্ম পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগের। সভাপতি মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী ও সাধারণ সম্পাদক শামসুল হক। কারাগারে থাকা শেখ মুজিবুর রহমানকে যুগ্ম সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। ১৯৫২ সালে শেখ মুজিবুর রহমান ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান। পরের বছর নির্বাচিত হন সাধারণ সম্পাদক। ৬৬ সাল পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক ছিলেন বঙ্গবন্ধু।

জন্মের ৬ বছরের মাথায় অসাম্প্রদায়িক দল হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেতে মুসলিম শব্দটি বাদ দেয়া হয়। ৫৭ সালে পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে বিরোধে মওলানা ভাসানী দল ছাড়েন। ৬৬তে বঙ্গবন্ধু সভাপতি ও তাজউদ্দিন আহমেদ সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ৬৬তে বাঙালির বাঁচার দাবি ছয়দফা দেন বঙ্গবন্ধু। এক হয় সাড়ে সাত কোটি বাঙালি। ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানে বাঙালি মুক্ত করে বঙ্গবন্ধুকে। ৭০-এর নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ একক সংখ্যাগরিষ্টতা অর্জন করে। ক্ষমতা হস্তান্তরে পাকিস্তানিদের তালবাহানা। স্বাধীনতার ঘোষণা দেন বঙ্গবন্ধু।

নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধে আসে স্বাধীনতা। বঙ্গবন্ধু যখন দেশ গড়ার পথে, ঠিক সেই সময়ে ৭৫-এর ১৫ই আগস্ট কালরাতে স্বপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় জাতির পিতাকে। আবারও উল্টোপথে বাংলাদেশ। আওয়ামীলীগের ওপর নেমে আসে নির্যাতনের খড়গ। বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা নির্বাসনে। কঠিন সময়ে দলের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেন জোহরা তাজউদ্দিন। ৮১ সালে আওয়ামীলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন শেখ হাসিনা। ফিরে আসেন দেশে।

ভোট-ভাতের অধিকার আদায়ে রাজপথে শেখ হাসিনার আওয়ামীলীগ। শত নির্যাতনেও দমেনি দলটি। ৮১ সাল থেকে এ পর্যন্ত দলটির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন আবদুর রাজ্জাক, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, জিল্লুর রহমান, আবদুল জলিল, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। আর টানা দ্বিতীয় মেয়াদে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ওবায়দুল কাদের।রোজ গার্ডেন থেকে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ পর্যন্ত দীর্ঘ পথ চলায় শুধুই সংগ্রাম আর ঐতিহ্যের গল্প।আওয়ামী লীগের হাত ধরেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে সমৃদ্ধির পথে। উন্নয়নের পথে হাঁটা আওয়ামী লীগের লক্ষ্য- উন্নত বাংলাদেশ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
আমাদের এখান থেকে কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ এবং আমাদের এখানে প্রচারিত সংবাদ সম্পূর্ণ আমাদের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে পাওয়া। কোন প্রকার মিথ্যা নিউজ হলে তার জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না সম্পূর্ণ দায়ী থাকিবে নিউজ পেরন কারী সাংবাদিক। (মানবিক দৃষ্টি সীমানা ফাউন্ডেশন এর একটি প্রতিষ্ঠান) 
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It